১৭ বছরে প্রথমবার মন্দার মুখে দ. কোরিয়া

২২ জুলাই ২০২০ ২৩:২৪:২৬
১৭ বছরে প্রথমবার মন্দার মুখে দ. কোরিয়া

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: করোনাভাইরাস মহামারির ধাক্কায় ১৭ বছরের মধ্য প্রথমবার মন্দার মুখে পড়েছে এশিয়ার চতুর্থ বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ দক্ষিণ কোরিয়া। চলতি বছরের প্রথম দুই প্রান্তিকে তাদের রপ্তানি কমেছে ব্যাপক হারে, ফলে কমে গেছে মোট দেশজ উৎপাদনও (জিডিপি)।

বৃহস্পতিবার ব্যাংক অব কোরিয়া জানিয়েছে, এপ্রিল-জুন প্রান্তিকে দক্ষিণ কোরিয়ার জিডিপি হ্রাস পেয়েছে ৩ দশমিক ৩ শতাংশ, যা বছরের প্রথম তিন মাসের তুলনায় অনেক বেশি। চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকে সেখানে জিডিপি সংকুচিত হয়েছিল প্রায় ১ দশমিক ৩ শতাংশ। ২০০৩ সালের পর এটাই প্রথমবার পরপর দুই প্রান্তিকে দক্ষিণ কোরিয়ার অর্থনীতি সংকুচিত হলো। তাছাড়া, এবারের ত্রৈমাসিক অর্থনৈতিক সংকোচনের হারও ১৯৯৮ সালের পর সবচেয়ে বেশি।

দক্ষিণ কোরিয়ার অর্থনীতির ৪০ শতাংশই রপ্তানিনির্ভর। কিন্তু, মহামারির কারণে তাদের রপ্তানি কমে গেছে অন্তত ১৬ দশমিক ৬ শতাংশ, যা ১৯৬৩ সালের পর থেকে সবচেয়ে বেশি। একই সময় তাদের আমদানি কমেছে প্রায় ৭ দশমিক ৪ শতাংশ।

তবে, টেকসই ভোগ্যপণ্য, যেমন গাড়ি বা বাড়ির সরঞ্জামের পেছনে কোরীয়দের ব্যয় বেড়েছে প্রায় ১ দশমিক ৪ শতাংশ।

অর্থনীতি সংকুচিত হলেও দ্রুতই স্বাভাবিক পরিস্থিতি ফিরে আসার বিষয়ে আশাবাদী দক্ষিণ কোরিয়ার অর্থমন্ত্রী হং নাম-কি। তিনি জানিয়েছেন, সরকারি ব্যয়, নগদ অর্থ বিতরণ এবং সংক্রমণের ধীরগতি অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে সহায়তা করতে পারে।

হং বলেন, সংক্রমণের গতি কমলে এবং বিদেশে উৎপাদন শুরু ও স্কুল-হাসপাতাল চালু হলে তৃতীয় প্রান্তিকে আমরাও চীনের মতো ঘুরে দাঁড়াতে পারি।

 

 

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন