বাংলাদেশে আটকে ২৩৯৯ ভারতীয়, মমতার দ্বারস্থ কেন্দ্র

১২ আগষ্ট ২০২০ ০১:৫২:০৪
বাংলাদেশে আটকে ২৩৯৯ ভারতীয়, মমতার দ্বারস্থ কেন্দ্র

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মহামারি করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে লকডাইনের জেরে বাংলাদেশে আটকে থাকা আড়াই হাজারের বেশি ভারতীয়কে দেশে ফিরিয়ে নিতে প্রচেষ্টা শুরু করেছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। এজন্য মমতা সরকারকে চিঠি দিয়েছে কেন্দ্র। আটকে পড়াদের দুটি স্থলবন্দর দিয়ে ফিরিয়ে নিতে তোড়জোড় শুরু হয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির সরকারি বাসভবন নবান্নকে উদ্ধৃত করে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানায়, লকডাউনে গত মার্চ থেকে বাংলাদেশে আটকে রয়েছেন দুই হাজার ৩৯৯ জন ভারতীয়। এদের মধ্যে দুই হাজার ৩৯৯ জনই পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা। পশ্চিমবঙ্গের ছয়টি ভারত-বাংলাদেশ স্থলবন্দরের মধ্যে অন্তত দুটি দিয়ে বাংলাদেশে আটকে থাকা ভারতীয়দের ফেরানোর বন্দোবস্ত করতে চিঠি দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার।

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের মুখ্যসচিব রাজীব সিনহাকে দেয়া চিঠিতে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব বিক্রম দোরাইস্বামী লিখেছেন, ঢাকা থেকে আমাদের হাইকমিশন জানিয়েছে, দুই হাজার ৩৯৯ জন ভারতীয় পেট্রাপোল-বেনাপোল স্থলবন্দর ও ২৮১ জন ফুলবাড়ি স্থলবন্দর দিয়ে দেশে ফিরতে আবেদন করেছেন।

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, কেন্দ্রের আর্জি মেনে বাংলাদেশে আটকে থাকা ভারতীয়দের দেশে ফেরানোর প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। তবে তার আগে তাদের শারীরিক পরীক্ষার আয়োজন কেন্দ্রীয় সরকারকেই করতে হবে।

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন