লিডসে জয় পেলেও এলিয়টের ইনজুরির দু:শ্চিন্তায় লিভারপুল

১৩ সেপ্টেম্বার ২০২১ ০৭:৪২:১৬
লিডসে জয় পেলেও এলিয়টের ইনজুরির দু:শ্চিন্তায় লিভারপুল

লিডসে রোববার জয় পেলেও লিভারপুল শিবিরে টিনএজ তারকা এলিয়টের ইনজুরি দু:শ্চিন্তার ছায়া ফেলেছে। ১৮ বছর বয়সী ওই মিডফিল্ডারের বাঁ পায়ের গোড়ালির স্থানচ্যুতি ঘটেছে। যে কারণে ৩-০ গোলের জয়টিও মন ভরাতে পারেনি রেডসদের।

দ্বিতীয়ার্ধের মাঝপথে পেছন থেকে এলিয়টকে এভাবে আঘাত করার কারণে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়তে হয়েছে লিডসের মিডফিল্ডার পাসকাল স্ট্রুইজকে। ম্যাচে লিভারপুলের হয়ে প্রিমিয়ার লিগে শততম গোলের মাইলফলক স্পর্শ করেছেন মিশরিয় তারকা মোহাম্মদ সালাহ।

ম্যাচের ২০ মিনিটে গোল করে রেডসদের এগিয়ে দেন সালাহ। বিরতির পর ৫০ মিনিটে লিভারপুলের হয়ে দ্বিতীয় গোল করেন ফ্যাবিনহো। শেষ বাঁশি বাজার মুহুর্তে (৯০ মি.) লিভারপুলের হয়ে তৃতীয় ও শেষ গোলটি করেন সাদিও মানে।

এই জয়ে  চার ম্যাচ থেকে ১০ পয়েন্টের সংগ্রহ নিয়ে চেলসি ও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সঙ্গে যৌথভাবে প্রিমিয়ার লিগ পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে উঠে গেছে লিভারপুল। তবে ইতিবাচক পারফর্মেন্স সত্বেও এলিয়টের ইনজুরির হতাশা গ্রাস করেছে পুরো স্কোয়াডকে।

গত মৌসুমে ফন ডিক এর দীর্ঘ ইনজুরির কারণে শিরোপা ধরে রাখা সম্ভব হয়নি জার্গেন ক্লপের শিষ্যদের। তবে এই মৌসুমে নিজের সেরা ফর্মের অনেকটা কাছাকাছি চলে আসা ডাচ এই অধিনায়ক বলেছেন, এলিয়টও একই রকম সমর্থন পাবেন। ফন ডিক বলেন, আমাদের সব চিন্তা ও প্রার্থনা তার জন্য। আশা করি যত দ্রুত সম্ভব তিনি সুস্থ হয়ে উঠবেন এবং ভাল থাকবেন।

আমার অভিজ্ঞতায় ভাল দিক হচ্ছে খেলোয়াড় স্টাফ সহ লিভারপুলের সবাই এবং সমর্থকরা কঠিন মুহূর্তে আমাকে সমর্থন দিয়েছে। আমরাও যে তাকে একই রকম সমর্থন দিব সেটি শতভাগ নিশ্চিত।

এলিয়টের ইনজুরির ওই ঘটনাটি ঘটেছিল একেবারেই লিভারপুলের সাইড বেঞ্চের সামনে। এই সময় ক্ষিপ্ত ক্লপ লিডস সমর্থকদের উদ্দেশ্যে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়ও করেন। ওই ঘটনায় কিছুটা উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এবং সাময়িকভাবে ম্যাচও থেমে যায়। 

তবে মাঠ ছাড়ার সময় লিডসের সমর্থকদের সমর্থনও লাভ করেন এলিয়ট। ১৮ বছর বয়সী ইংলিশ মিডফিল্ডারকে উত্তেজনাপুর্ন অভ্যর্থনা প্রদান করেন স্বাগতিক সমর্থকরা।

ক্লপ বলেন, লিভারপুলের চিকিৎসকরা এলিয়টের পায়ের গোড়ালি সঠিক স্থানে প্রতিস্থাপন করতে সক্ষম হয়েছেন। এটি অবশ্যই খারাপ একটি ইনজুরি এবং আমাদেরকে পরবর্তী পরীক্ষার জন্য অপেক্ষা করতে হবে। আমরা তার জন্য অপেক্ষা করব, কারণ সে আমাদের একজন শীর্ষস্থানীয় খেলোয়াড়।

এদিকে ফন ডিকের প্রত্যাবর্তনের দারুন প্রভাব দেখা গেছে লিভারপুল শিবিরে। মৌসুমের প্রথম চার ম্যাচে একটি মাত্র গোল হজম করেছে ক্লাবটি। যদিও সালাহকে বাদ দিলে চেলসি, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও ম্যানচেস্টার সিটির মত ক্লাবগুলোর সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় লিভারপুল কতটা সামর্থ্যবান সেটি নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে। সূত্র: বাসস/এএফপি

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন