লেবানন সীমান্তে ইসরায়েলের যুদ্ধ মহড়া

০৪ নভেম্বার ২০২১ ০৬:৫২:৩০
লেবানন সীমান্তে ইসরায়েলের যুদ্ধ মহড়া

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: লেবানন সীমান্তের কাছে সামরিক অনুশীলন বাড়িয়ে দিয়েছে ইহুদিবাদী ইসরায়েল। তেল আবিব জানিয়েছে, লেবাননের সঙ্গে সম্ভাব্য সংঘাতের আশঙ্কায় নিজের রিজার্ভ ফোর্সের যুদ্ধ প্রস্তুতি ঝালিয়ে নিতে এই অনুশীলন চালানো হচ্ছে।

 

ইহুদিবাদী ইসরায়েলের একাধিক সামরিক সূত্রের বরাত দিয়ে তেল আবিব থেকে হিব্রু ভাষায় প্রকাশিত ইসরাইল হাইয়ুম পত্রিকা এ খবর জানিয়েছে।

 

বুধবার (৩ নভেম্বর) ইসরায়েল এক বিবৃতিতে জানায়, রিজার্ভ ফোর্সের যুদ্ধ প্রস্তুতি পর্যবেক্ষণ করার জন্য অন্তত ২০ হাজার সেনাকে তলব করা হয়েছে এবং তারা নভেম্বর মাসের শুরুতে উত্তর সীমান্তে প্রশিক্ষণ শুরু করেছে। যেকোনো ধরনের সংঘাতময় পরিস্থিতিতে ইসরাইলকে রক্ষা করার লক্ষ্যে রিজার্ভ সেনাদেরকে প্রস্তুত করা হচ্ছে।

 

এর দুই সপ্তাহ আগে তেল আবিবের একাধিক সূত্রের বরাত দিয়ে ইসরাইলি গণমাধ্যমগুলো খবর দিয়েছিল, ইসরাইলের হাইফা শহরের রাসায়নিক কারখানাগুলোতে লেবাননের হিজবুল্লাহর সম্ভাব্য হামলার ক্ষয়ক্ষতি রোধ করার লক্ষ্যে সেরকম যুদ্ধের মহড়া দেবে তেল আবিব। তবে রিজার্ভ ফোর্সের চলমান প্রশিক্ষণ সেই মহড়া কিনা তা জানা যায়নি।

 

ইহুদিবাদী ইসরাইল শুরু থেকেই লেবাননের হিজবুল্লাহর সামরিক শক্তির ব্যাপারে ভীত-সন্ত্রস্ত। ইসরাইলি নিউজ ওয়েবসাইট ওয়েল্লালা সম্প্রতি এক বিশ্লেষণে জানিয়েছিল, ২০০৬ সালের যুদ্ধের পর লেবাননের হিজবুল্লাহ সামরিক দিক দিয়ে অনেক বেশি শক্তিশালী হয়েছে।

 

এটি আরও জানায়, হিজবুল্লাহর অস্ত্রাগারে ১৫ থেকে ৭০০ কিলোমিটার পাল্লার হাজার হাজার ক্ষেপণাস্ত্র, ২০০ কিলোমিটার পাল্লার গাইডেড মিসাইল এবং ৪০০ কিলোমিটার পর্যন্ত উড়ে যেতে সক্ষম পাইলটবিহীন বিমান বা ড্রোন রয়েছে। পার্সটুডে।

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন